স্কুল জীবন থেকে ট্রাফিক আইন শেখার তাগিদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে চালক পথচারীসহ সবাইকে আইন মেনে পথ চলা এবং স্কুল জীবন থেকে ট্রাফিক আইন শেখার তাগিদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিএনপি রেলকে বন্ধ করে দিতে চাইলেও বর্তমান সরকার এটিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রুপ দিতে কাজ করার কথাও জানান তিনি।১৬ অক্টোবর (বুধবার )সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভুলতা ফ্লাইওভারসহ বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্প এবং ঢাকা-কুড়িগ্রাম সরাসরি কোন ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজধানী ঢাকার সাথে সারা দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে সহজ করতে জাতীয় মহাসড়গুলো চারলেনে উন্নিত করছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে সিলেটসহ উত্তরপুর্বাচঞ্চলের মানুষের জন্য নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা সাড়ে তিনশ কোটি টাকা খরচে চার লেনের উড়ালসড়ক নির্মাণ করা হয়।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ময়মনসিংহ-গফরগাঁও-টোক সড়কে বানার নদীর ওপর সেতু, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতায় ৪ লেনের ফ্লাইওভার, মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন সড়কে ১৩টি সেতু, পটিয়া বাইপাস সড়ক, সাতক্ষীরা শহর বাইপাস সড়ক উদ্বোধন করেন।

সুচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্কুল জীবন থেকে ট্রাফিক আইন শেখার তাগিদ দিয়ে নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সবাইকে আইন মেনে চলার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্কুল থেকেই ট্রাফিক আইন সম্পর্কে ছেলেমেয়েদের সচেতন করতে হবে। রাস্তায় কোনদিক থেকে হাঁটতে হবে, সেটাও শিক্ষণীয় বিষয়। আমি মনে করি, আমাদের প্রতিটি স্কুলে শিক্ষার্থীদের এই শিক্ষা দেওয়া একান্ত দরকার।

ঢাকা-কুড়িগ্রাম সরাসরি কোন ট্রেন না থাকলেও স্বাধীনতার পর এবার প্রথম আন্তঃনগর ট্রেন পেল উত্তরের সর্বশেষ জনপদবাসী।

ভিডিও কনফারেন্সে কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ও নতুন কোচ সংযুক্ত রংপুর এক্সপ্রেস ও লালমনি এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করেন সরকার প্রধান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের মাধ্যমে আর্থ সামাজিক অবস্থার উন্নয়নে কাজ সরকার।

সারা বাংলাদেশে রেল নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা হচ্ছে উল্লেখ করে দ্রুত গতির রেল চালুর পরিকল্পনার কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । সবশেষে উত্তরের জনপদের মানুষের সাথে কথাও বলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ