সাভারে র‌্যাব এর অভিযানে ৩ ফার্মেসীতে ঔষধ জব্দ

সাভারে সিপিসি-২, র‌্যাব-৪ এর অভিযানে ০৩ টি ফার্মেসীতে ২,০০,০০০/- টাকা অর্থদন্ড সহ ০১,০০,০০০/- লক্ষ টাকা মুল্যের বিভিন্ন ঔষধ জব্দ।

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন, (র‌্যাব) এলিট ফোর্স হিসেবে আত্মপ্রকাশের সূচনালগ্ন থেকেই বিভিন্ন ধরনের অপরাধ নির্মূলের লক্ষ্যে অত্যন্ত আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে আসছে। খুন, ডাকাতি, দস্যুতা, ধর্ষণ, অপহরণ, চাঁদাবাজি, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সন্ত্রাসী গ্রেফতার এবং জঙ্গীবাদের মত ঘৃণ্যতম অপরাধের রহস্য উৎঘাটন সহ নকল পণ্য ক্রয় বিক্রয় ও তৈরী করায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে অপরাধীদের গ্রেফতার পূর্বক অর্থদন্ড আদায়ে র‌্যাবের জোড়ালো তৎপরতা অব্যাহত আছে।

এরই ধারাবাহিকতায় অবৈধভাবে আশুলিয়া থানাধীন পলাশবাড়ী ও গাজীরচট এলাকায় ঔষধ প্রশাসনের এর অনুমোদন ব্যতিত বিভিন্ন নকল পণ্য তৈরীর অপরাধে সিপিসি-২, র‌্যাব-৪, নবীনগর ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল মেজর শিবলী মোস্তফা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, র‌্যাব -৪, মিরপুর-১, ঢাকা এর নেতৃত্বে ইং- ১৯/০১/২০২০ তারিখ ১৩০০ ঘটিকা হতে ইং ১৯/০১/২০২০ তারিখ ১৭০০ ঘটিকা পর্যন্ত ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানাধীন পলাশবাড়ী ও গাজীরচট এলাকায় মোবাইল কোর্ট পলিচালনা করে ১) মেসার্স শাহ জালাল ফার্মেসীর মালিক মোঃ মোশারফ হোসেন (৩২), পিতা- মৃত নাজমুল হক, সাং- চন্দ্রপুর, থানা- বারহাট্রা, জেলা- নেত্রকোনা, এ/পি- মেসার্স শাহ্ জালাল ফামের্সী, বুড়ির বাজার রোড, বাইপাইল, আশুলিয়া, ঢাকা এর নিকট হতে নগদ ১,০০,০০০/- (এক লক্ষ) টাকা অর্থদন্ড আদায় করা হয়। ২) তরুন ফার্মেসীর মালিক বরুন মিস্ত্রী (৪৪), পিতা- ডাক্তার অবিনাশ মিস্ত্রী, সাং- বড়াকুঠা, থানা- ওজিরপুর, জেলা- বরিশাল, এ/পি- তরুন ফার্মেসী, উত্তর গাজিরচট, আশুলিয়া, সাভার, ঢাকা এর নিকট হতে নগদ ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা অর্থদন্ড আদায় করা হয় এবং ৩) মেসার্স হাজী ছবুর মাষ্টার ফার্মেসী এন্ড স্কীন কেয়ার এর মালিক মোঃ ইসরাফিল আলম (৫০), পিতা- মৃত হাজী ছুবর মাষ্টার, সাং- ডগরতুলী, থানা- আশুলিয়া, জেলা-ঢাকা, এ/পি- মেসার্স হাজী ছবুর মাষ্টার ফার্মেসী এন্ড স্কীন কেয়ার, পলাশবাড়ী বাজার, আশুলিয়া, সাভার, ঢাকা এর নিকট হতে নগদ ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা অর্থদন্ড আদায় করা হয়। এছাড়াও ০৩ টি ফার্মেসী হতে বিভিন্ন বিক্রয় নিষিদ্ধ অবৈধ ওষুধ মালামাল জব্দ করা হয় এবং বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হয়। জব্দকৃত মালামালের সর্বমোট মূল্য অনুমান ০১,০০,০০০/- (এক লক্ষ) টাকা। এ সংক্রান্তে ঔষধ আইন ১৯৪০ এর ১৮(বি) ধারায় মোবাইল কোট মামলা নং-২১/২০, ২২/২০, ২৩/২০, তারিখঃ ১৯/০১/২০২০ রুজু হয়।

উপরোক্ত বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ