সহিংসতায় দিল্লিতে নিহতের সংখ্যা ২০

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফরের সময় শুরু হওয়া সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনবিরোধী সহিংস বিক্ষোভে উত্তাল নয়াদিল্লি।

পাল্টাপাল্টি সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন দেড় শতাধিক। জারি আছে ১৪৪ ধারা। আহতদের উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিতের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভারত সফরের শুরুর দিন থেকেই রাজধানী নয়াদিল্লি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। রাজপথগুলো পরিণত হয় রণক্ষেত্রে। উত্তর-পূর্ব দিল্লির কয়েকটি অংশে বসতবাড়ি ও যানবাহনে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ করা হয়।

হামলার শিকার হওয়া ভুক্তভোগীরা বলেন, বাসা থেকে বের হতেই তারা হামলা চালায়। আমার পরিবারের সদস্যরাও আহত হয়েছেন। লুটপাট করেছে। এটিএম বুথ থেকে টাকা নিয়ে গেছে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠিচার্জ ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। বিভিন্ন জায়গায় জারি আছে ১৪৪ ধারা। বন্ধ হয়ে গেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সহিসংতা বন্ধে ও আহতদের উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত।

বিজেপির অসংবেদনশীল আচরণেই দিল্লি উত্যপ্ত বলে মন্তব্য করেছে কংগ্রেস। কয়েকদিনের টানা উত্তেজনায় উদ্বেগ জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ