সরকার ও নির্বাচন কমিশনের ওপর জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস নেই: আ স ম আব্দুর রব

আসন্ন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে ইভিএম বাতিলের দাবি জানিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ দাবি জানান জোটের অন্যতম শীর্ষ নেতা আ স ম আব্দুর রব।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, সরকার ও নির্বাচন কমিশনের ওপর জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস নেই। সে কারণে সুষ্ঠু ভোট ছাড়াই ক্ষমতা দখল ও ক্ষমতা চিরস্থায়ী করার নিত্যনতুন কূটকৌশলের আশ্রয় নিচ্ছে সরকার। জনগণকে নানাভাবে হয়রানি ভয়-ভীতি, সন্ত্রাস ও গ্রেপ্তারের মাধ্যমে নির্বাচনবিমুখ করা হয়েছে। নির্বাচনে ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতিতে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে সরকার ও নির্বাচন কমিশন। ইভিএম ভোটচুরির নতুন পদ্ধতি। ইভিএমে প্রযুক্তি ও তথ্যপদ্ধতি যেভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে, তাতে মধ্যরাতে ভোটের ধারাবাহিকতায় এটা হবে আরও একটি জঘন্য দৃষ্টান্ত। ইভিএম পদ্ধতি বিতর্কিত ও সাংবিধানিকভাবে অগ্রহণযোগ্য। এভাবে ভোট করলে তা পুরো নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে অশুভ অভিঘাতের দিকে নিয়ে যাবে নিঃসন্দেহে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, অধ্যাপক আবু সায়ীদ, নুরুল আমিন বেপারী, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, সানোয়ার হোসেন, ঐক্যফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমুখ।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ