যুক্তরাষ্ট্রে ফের হামলা, নিহত ৯

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে হামলার রেশ কাটতে না কাটতে দেশটির ওহিও অঙ্গরাজ্যে আবারও বন্দুকধারীর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৯ জনের প্রাণহানি হয়েছে।

স্থানীয় সময়৩ আগস্ট (শনিবার) দিনগত রাত ১টার দিকে রাজ্যের ডেটন এলাকায় একটি পানশালার বাইরে ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

ওইদিন সকালে টেক্সাসের এলপাসো শহরের ওয়ালমার্টে বন্দুকধারীর এলোপাতাড়ি গুড়িতে ২০ জন নিহত হন। এই হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত ২৬ জন। হামলায় জড়িত সন্দেহে এক শ্বেতাঙ্গ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে এফবিআই। হামলাকে কাপুরুষোচিত আখ্যা দিয়ে গভীর নিন্দা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ভয়াবহ ওই ঘটনার কয়েকঘণ্টার মধ্যেই ওহিওতে পানশালায় ঢুকতে না পেরে এক ক্ষুব্ধ যুবক এলোপাতাড়ি গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই ৯ জন নিহত এবং আরও ১৬ জন আহত হন।

এদিকে সকালের হামলাকারীর নাম প্যাট্রিক ক্রুসিয়াস। মার্কিন গণমাধ্যম জানিয়েছে, হামলাকারী অভিবাসী ও হিস্পানিক বিদ্বেষী।

এল পাসো শহরের পুলিশ প্রধান জর্জ এলেন বলেন, এটা একটি ঘৃণ্য হামলা। এফবিআই হামলার কারণ অনুসন্ধানে ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে। আশা করি আটক হওয়া সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পরই বিস্তারিত জানা যাবে। তবে ধারণা করা হচ্ছে একটি উদ্দেশেই হামলা চালানো হয়েছে।

হামলায় আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। তবে হতাহতদের পরিচয় সম্পর্কে এখনো কোন তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

এদিকে নৃশংস এই হামলার পর এই টুইটে একে কাপুরুষোচিত আখ্যা দিয়ে গভীর নিন্দা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নিরীহ মানুষদের হত্যা কোন অবস্থাতেই মেনে নেওয়া হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ