ময়মসিংহে ফেসবুকে ‘অসদাচরণ’; কলেজ শিক্ষিকা বরখাস্ত

আলমগীর সরকার, ময়মনসিংহ:
করোনা ভাইরাস নিয়ে বিতর্কিত পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে ময়মনসিংহের গফরগাঁও সরকারি কলেজের এক শিক্ষিকাকে বরখাস্ত করে আদেশ জারি করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগ। পাশাপাশি সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা অনুযায়ী কেন তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তা আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে জানাতে তাকে নোটিশও পাঠানো হয়েছে।
ওই শিক্ষিকার নাম কাজী জাকিয়া ফেরদৌসী। তিনি সহকারী অধ্যাপক হিসেবে ওই কলেজের ইংরেজি বিভাগে শিক্ষকতা করতেন।
কলেজটি অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাম্মদ মোহসেন জানিয়েছেন, বুধবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এ আদেশ দেওয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন স্বাক্ষরিত এক আদেশে বুধবার তাদের সাময়িক বরখাস্ত করে শোকজ করা হয়।
বরখাস্তের আদেশে বলা হয়েছে, ‘দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয়, দপ্তর, সংস্থা বর্তমানে বিভিন্ন পর্যায়ে সমন্বিতভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এ অবস্থায় আপনি আপনার ফেসবুক আইডি থেকে নিজ নামে অনভিপ্রেত ও উস্কানিমূলক বক্তব্য ও ছবি পোস্ট করেছেন, যা সরকারের চলমান সমন্বিত কার্যক্রমের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।’
শিক্ষা ক্যাডারের এ কর্মকর্তার আচরণকে ‘সরকারি ব্যবস্থাপনা ও জনস্বার্থ বিরোধী এবং শৃঙ্খলা পরিপন্থি’ আচরণ উল্লেখ করে একে অসদাচরণ হিসেবে গণ্য করা হয়েছে।
২৫ মার্চ থেকে কার্যকর এই আদেশে সরকার বলেছে, বরখাস্তকালীন তিনি বিধান মোতাবেক খোরপোষ ভাতা পাবেন এবং এ সময়ে তিনি নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষের ‘গোচরে’ থাকবেন।
এ ব্যাপারে অধ্যাপক জাকিয়া ফেরদৌসী বলেন, পুরস্কার বা তিরস্কার আমাদের চাকরির একটি অংশ । ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছি। তবে ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে মেসেজটা দিতে দিতে ব্যর্থ হয়েছি। হয়তো আমার এই মেসেজ ভিন্ন অর্থ বহন করছিল।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ