ময়মনসিংহ সেচ্ছাসেবকলীগ নেতার চিকিৎসায় পাশে দাঁড়ালেন সংসদ সদস্য বাবেল

আলমগীর সরকারঃ

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে দুর্বৃত্তদের হামলায় বামহাত কেটেফেলা সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ইলিয়াস নোমান গুরুতর আহত হয়ে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে লড়ছেন। তার চিকিৎসায় পাশে দাঁড়ালেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ময়মনসিংহ-১০ গফরগাঁও আসনের এমপি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল । শনিবার বিকালে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইলিয়াস নোমানের চিকিৎসার খোঁজ নিতে হাসপাতালে যান এমপি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল ।

এমপি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল বলেন,ইলিয়াস নোমানের উপরে যারা হামলা চালিয়েছে দ্রুত তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। এ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্তদের আটক করে বিচারের কাঠগোড়ায় দাঁড় করানোর জন্য ইতোমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে র্নিদেশ দিয়েছে । গফরগাঁয়ের মাটিতে সন্ত্রাসের কোন স্থান হবেনা ।

উল্লেখ্য,জেলা সেচ্ছাসেবকলীগ সদস্য গফরগাঁও উপজেলার যশরা ইউনিয়নের যশরা গ্রামের ইলিয়াস নোমান সাথে এলাকার নতুন বৈদ্যুিতক সংযোগকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সাথে বিরোধের সৃষ্টি হয় । এর জের ধরে ২ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকালে ইলিয়াস নোমান মটরসাইকেল যোগে শবিগঞ্জ বাজার থেকে যশরা গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার পথে সন্ধ্যায় শবিগঞ্জ– বাড়া সড়কের যশরা আয়েশা হাসান দাখিল মাদ্রাসার সামনে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা অজ্ঞাত দুবৃত্তরা নোমানের মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে রামদাসহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে।

এতে দায়ের কুপে ইলিয়াস নোমানের বাম হাতের কব্জির নীচে প্রায় বিচ্ছিন্ন করে ফলো হয়েছে। পথচারীরা আশংকাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । সেখানে মঙ্গলবার দুপুরে তার বামহাত কেটে ফেলা হয় ।

এ ঘটনায় রাতেই ইলিয়াস নোমানের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার বাদী হয়ে যশরা ইউনয়িন ৩ নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতিসহ ৯ জনের নাম উল্লেখ করে আরো ৮-১০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ