মাদারীপুরে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে চাচাতো ভাইকে হত্যার অভিযোগ

জাহিদ হাসান, মাদারীপুর:

মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের ফালু মাদবরেরকান্দি গ্রামে কালাম ঘরামী (৩০) কে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে চাচাতো ভাইয়ের বিরুদ্ধে। শিবচর থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার ভোরে বাড়ির পাশের একটি বাগান থেকে লাশটি উদ্ধার করেছে। নিহতের পরিবারের দাবি ঘর থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের ফালু মাদবরেরকান্দি গ্রামের নুরু ঘরামীর ছেলে কালাম ঘরামীকে বুধবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে হারুন ঘরামী নামের নিহতের চাচাতো ভাই ‘কথা আছে’ বলে তাকে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে দীর্ঘক্ষন সময় পেরিয়ে গেলেও কালাম ঘরামী ঘরে ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজি করতে থাকে পরিবারের লোকজন। এ সময় চাচাতো ভাই হারুন ঘরামীকে জিজ্ঞেস করেও কোন সদুত্তর পায়নি নিহত কালাম ঘরামীর পরিবার।

পরে ভোররাতের দিকে বাড়ির পাশের একটি বাগানে রক্তাক্ত মৃত অবস্থায় কালামের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় নিহতের পরিবার। পুলিশ এসে বৃহস্পতিবার সকালে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে।
নিহত কালাম ঘরামীর বাবা নুরু ঘরামী জানান, জমিজমা নিয়ে তার ভাতিজা হারুনের সাথে অনেকদিন ধরেই তাদের বিরোধ চলে আসছিল। রাতে হারুন তার ছেলেকে ডেকে নিয়ে গেছে। আর সকালে ছেলের মৃতদেহ পেলেন পাশের বাগানে। তার ছেলেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।
শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে। দুপুর পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে আমরা কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঘটনাটি নিয়ে এখনও আমাদের তদন্ত চলছে। এ ঘটনার পর থেকে নিহতের চাচাতো ভাই হারুন ঘরামীসহ তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ