মাদারীপুরের শিবচরে নারী চিকিৎসক ও সন্তান করোনায় আক্রান্ত

জাহিদ হাসান,মাদারীপুর:

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে লকডাউন হওয়া দেশের প্রথম জেলা মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায় আবারও নতুন করে এক নারী চিকিৎসক ও তার শিশুকন্যা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগে তার চিকিৎসক স্বামীও করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালের আইসোলেশনে রয়েছেন।

তিনি নারায়ণগঞ্জে প্র্যাকটিস করত বলে জানা গেছে। আক্রান্তের অবস্থান নেওয়া শিবচর হাসপাতালের ডক্টরস কোয়ার্টারে বসবাস করা আরো তিন চিকিৎসক পরিবার চরম ঝুঁকিতে থাকায় লকডাউন জোড়ালো করা হয়েছে। এ নিয়ে শিবচর উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৭সহ মাদারীপুর জেলায় মোট আক্রান্তর সংখ্যা বেড়ে দাড়াল ২৫ জনে। এদের মধ্যে শিবচরের এক ইটালি প্রবাসীর পরিবারের ছয় সদস্য ছাড়পত্র পাওয়ার পর দ্বিতীয় দফায় আক্রান্ত হয়ে জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে রয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক নারী চিকিৎসক ও তার সাত বছরের শিশুকন্যা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। নমুনা পরীক্ষায় তার করোনা পজিটিভ এসেছে। এর আগে তার ডাক্তার স্বামী করোনায় আক্রান্ত হন। তিনি নারায়নগঞ্জ থেকে চিকিৎসক স্ত্রীর কাছে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডক্টরস কোয়ার্টারে বেড়াতে এসেছিলেন। বর্তমানে তিনি ঢাকার বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এ ব্যাপারে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শশাঙ্ক চন্দ্র ঘোষ বলেন, আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ডক্টরস কোয়াটারটি জোড়ালো লকডাউন করে ওই ভবনে বাস করা চার চিকিৎসক পরিবারকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, শিবচরে এ পর্যন্ত দুই চিকিৎসকসহ ১৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজন মারা গেছে, দুজন সুস্থ ও বাকিরা আইসোলেশনে আছে।

 

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ