ভোলায় বিপুল পরিমান নিষিদ্ধ গাইড বই জব্দ; গোডাউন সিলগালা।

ভোলায় হাসান বুক হাউজ নামে একটি বই লাইব্রেরীর গোডাউনে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নিষিদ্ধ গাইড বই জব্দ করা হয়। এসময় ওই গোডাউনটিকে সিলগালা করা হয়। ভোলার নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুসরাত ফাতেমা ও রেজয়ানা চৌধুরী আজ রবিবার সন্ধ্যায় ভোলার শহরের বাংলাস্কুল মোড় এলাকার আমানত পাড়ার এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
ভোলা ডিসি অফিসের জুডিশিয়াল পেশকার (জেপি) তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ভোলা শহরের বাংলা স্কুল মোড় এলাকায় হাসান বুক হাউসের মালিক মোঃ কামাল হোসেন শহরের আমানত পাড়ায় কাউন্সিলর রাজিয়া সুলতানার ঘর ভাড়া নিয়ে গোডাউন তৈরি করে ভোলা জেলাব্যাপী নিষিদ্ধ গাইড বইয়ের ব্যবসা পরিচালনা করছিল। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের টিম অভিযান চালিয়ে ওই গোডাউনে থাকা ৬/৭ হাজার নিষিদ্ধ গাইড বই জব্দ করেন। পরে কাউন্সিলর রাজিয়া সুলতানার ওই গোডাউন সিলগালা করা হয়। তিনি আরো জানান, প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই গোডাউনের মালিক পালিয়ে যাওয়া তাদের আটক করা যায়নি।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বছর ভোলার শহরের মাসুমা খনম বিদ্যালয়ের একটি রুম ভাড়া নিয়ে হাসান বুক হাউসের মালিক মোঃ কামাল হোসেন গোডাউন তৈরি করলে সেখানে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট অভিযান চালিয়ে ওই গোডাউনটি সিলগালা করলে সে এবছর গোপনে আমানত পাড়ায় কাউন্সিলর রাজিয়া সুলতানার বাসা ভাড়া নিয়ে পাঞ্জেরি, এডভান্স, লেকচার, অনুপম, ইন্টানেটসহ বিভিন্ন কম্পানির নিষিদ্ধ গাইড বইয়ের জেলাব্যাপী পাইকারী ও খুচরা ব্যবসা পরিচালনা করছিল।
প্রধান শিক্ষাক মোঃ জামাল হোসেন জানান, হাসান বুক হাউসের মালিক মোঃ কামাল হোসেন তার ও কম্পানির প্রতিনিধি দিয়ে ভোলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের গাইড বই ক্রয় করার জন্য উৎসাহিত করছেন। এছাড়াও কিছু অসাদু শিক্ষকদের নিয়েও তিনি এ ব্যবসা পরিচালনা করেন।
তিনি আরো জানান, দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার মান বাড়াতে চাইলে হাসান বুক হাউজের মত যারা নিষিদ্ধ গাইড বইর ব্যবসায় করেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি সরকারের কাছে দাবী জানান।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ