ভোলায় বাল্য বিয়ে বন্ধে ঐক্যবদ্ধ ভাবে শপথ নিলেন জনতা

 

ইমতিয়াজুর রহমান, ভোলা প্রতিনিধি :

বাল্য বিয়ে মুক্ত সমাজ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে ভোলার সদর উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের (চৌমূহনী) এলাকার কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষ,কিশোর-কিশোরী শপথ গ্রহন করেন।

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের  সহায়তায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কোস্ট ট্রাস্ট এর সমন্বিত শিশুবিবাহ প্রতিরোধ কার্যক্রম (আইইসিএম) প্রকল্পের আওতায় এই শপথ ও বাল্য বিয়ে মুক্ত ওয়ার্ড ঘোষনা করা হয়।

বুধবার বিকেলে উত্তর অলী-নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জনতার শপথ ও বাল্য বিয়ে মুক্ত করার লক্ষ্যে এই শপথ নেয়। এ সময় শপথ বাক্য পাঠ করান আলী নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বশীর আহমেদ ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ভোলা সদর মডেল থানার (ওসি অপারেশন) রিপন কুমার সাহা, আইইসিএম প্রকল্পের উপজেলা ট্রেনিং এন্ড মনিটরিং অফিসার জিয়া উদ্দিন, এডভোকেসি এন্ড মিডিয়া অফিসার আদিল হোসেন, সমাজকর্মী মরিয়ম বেগম,সিবিসিপিসি কমিটির সদস্য হরিহর চন্দ্র দাশ, মো: শাহীন  প্রমুখ।

এসময় কিশোর- কিশোরী পক্ষে বক্তব্য রাখেন আয়শা,রাব্বি,তামান্না। এবং কিশোরী ক্লাবের সদস্যরা বাল্য বিয়ের উপর একটি নাটিকা প্রদর্শন করেন।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,বাল্য বিবাহ দেশ ও জাতির জন্য অভিশাপ। বাবা-মা’র অসচেতনতামূলক দায়-দায়িত্ব থেকে মুক্ত হওয়ার বাসনা । এই বাল্যবিবাহে ধ্বংস হয় একটি একটি পরিবার, একটি সমাজ, সর্বোপরি একটি রাষ্ট্র। আর বর্তমান পৃথিবী হারাচ্ছে আগামীর পৃথিবীকে, এবং দেশ হারাচ্ছে উন্নয়নশীল দেশ গড়ার হাতিয়ারগুলো।  তাই আগামী প্রজন্মকে সুস্থ-জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে বাল্য বিয়ে মুক্ত সমাজ গড়তে শপথ নেওয়ার আহ্বান জানায়।

এসময় বাল্য বিবাহ, ইভটিজিং, শিশুর প্রতি শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার, মাদকসহ সামাজিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। শেষে মেয়েদের ১৮ বছরের নিচে এবং ছেলেদের ২১ বছরের নিচে বিয়ে নয় বিষয়ে এবং বাল্য বিবাহ রোধে শপথ পাঠ করানো হয়।

 

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ