বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব বুদ্ধ পূর্ণিমা আজ

বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব বুদ্ধ পূর্ণিমা ৬ মে, বুধবার। দেশে করোনা পরিস্থিতির কারণে এদিন সবাইকে নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করেই উৎসব পালনের আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন।

মঙ্গলবার (৫ মে) সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ভিক্ষু সুনন্দপ্রিয় স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুদ্ধ পূর্ণিমা মহামানব ভগবান বুদ্ধের জন্ম, বুদ্ধত্ব লাভ ও মহাপরিনির্বাণ দিবস। এই তিন স্মৃতি বিজড়িত দিবসটিকে জাতিসংঘ ‘ইউনাইটেড নেশন ডে অব বৈশাখ ’ নামে আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবেও ঘোষণা করেছে। বৌদ্ধ বিশ্ব এ দিবসটি অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণভাবে উদযাপন করে। আমরাও প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশে যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় প্রতি বছর বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করে থাকি। সরকার এ দিবসে জাতীয় ছুটি ঘোষণা করে।

‘কিন্তু আপনারা সবাই জানেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব চলছে। তাতে বাংলাদেশও আক্রান্ত। এর ফলে দেশে বর্তমানে লকডাউন চলছে। সরকার ঘোষিত লকডাউনের আওতায় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে এ বছর রাজধানীর মেরুল বাড্ডায় আন্তজার্তিক বৌদ্ধ বিহারে বুদ্ধ পূর্ণিমার কোনো রকম আনুষ্ঠানিক কর্মসূচি পালন করা হবে না। শুধুমাত্র বৌদ্ধ বিহারে অবস্থানরত ভিক্ষুসংঘরা ধর্মীয় অনুষ্ঠান, পূজা, বন্দনাসহ ধর্মীয়কার্য সমাধা করবেন। ভক্ত, উপাসক-উপাসিকারা নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করেই ধর্মীয় কার্য প্রতিপালন করবেন।’

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ভগবান বুদ্ধের আহ্বান অনুযায়ী আমরা করোনার এই সময়ে হতদরিদ্র মানুষের জন্য দানের হাত বাড়াবো। সেই সঙ্গে দেশের সার্বিক মঙ্গল কামনা করবো।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ