বঙ্গবন্ধু তাঁর কর্মে আজ বিশ্ববন্ধু – মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

 

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু তাঁর কর্মে আজ বিশ্ববন্ধুতে পরিণত হয়েছে। সম্প্রতি জাতিসংঘ বঙ্গবন্ধুকে বিশ্ববন্ধু উপাধি দেয়াতে বঙ্গবন্ধু আজ বিশ্বব্যাপি স্বীকৃত। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধু বাঙালি জাতির পিতা নন, তিনি বিশ্ব মানবতার নেতা।

বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ জাতিসংঘের ইউনেস্কো পৃথিবীর সকল নির্যাতিত মানুষের মুক্তির সনদ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে বাঙালি জাতি অর্জন করেছে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। কিন্তু পরিতাপের বিষয়, দেশ স্বাধীন হওয়ার মাত্র ৪৪ মাসের মধ্যে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক স্বাধীনতা বিরোধী চক্র বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। এই হত্যাকান্ডের সাথে জিয়াউর রহমান জড়িত ছিল। বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডে যারা সরাসরি জড়িত ছিল তাদের বিচার হয়েছে। কিন্তু এই হত্যাকান্ডের পিছনে জিয়াউর রহমানসহ যারা জড়িত ছিল তাদের বিচার এখনও হয়নি। এই হত্যাকান্ডের পিছনে যারা জড়িত ছিল তাদের অবশ্যই সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু ও তাঁর আদর্শ বাঙালি জাতির সবচেয়ে বড় সম্পদ। দেশের সর্বস্তরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করতে সকলকে সচেষ্ট থাকতে হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৯ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের উদ্যোগে ২৪ আগস্ট শনিবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাব আবদুস সালাম মিলনায়তনে (৩য় তলায়) অনুষ্ঠিত শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর অন্যতম সদস্য মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মুহম্মদ শফিকুর রহমান এমপি, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম শামসুন্নাহার ভূঁইয়া এমপি, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইসমাইল, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড এর ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত কাদির গামা ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বাহাদুর বেপারী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুষ্ঠিত ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ’ শীর্ষক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদেরকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নারীনেত্রী আইভী রহমানসহ শহীদদের ও ১৯৭৫’র ১৫ আগস্টের শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও দেশ-জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন অনুষ্ঠানের সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ