নবীগঞ্জের বিবিয়ানা পাওয়ার প্লান্ট এলাকায় যুবকের লাশ উদ্ধার

তৌহিদ চৌধুরী,  নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ):
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে এশিয়ার বৃহত্তম বিবিয়ানা পাওয়ার প্লান্ট এলাকায় ক্ষত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার সকালে এলাকাবাসী একটি লাশ দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করে।
নিহতের বাড়ি নবীগঞ্জ  উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামের রফিক মিয়ার পুত্র  জায়েদ মিয়া (২৫)। সে এশিয়ার বৃহত্তম বিবিয়ানা পাওয়ার প্লান্টে চাকুরী কর্মরত ও শেরপুর বাজারস্থ একটি টং দোকানের মালিক। এ ঘটনায় এলাকায় খুন আতংক, ক্ষোভ ও উত্তেজন বিরাজ করছে। অপরদি,  নিহতের পরিবারের লোকজনের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
এলাকাবাসী সাথে আলাপকালে তারা জানান, দিনে দিনে আমাদের এলাকায় ছিনতাই, চুরি, ডাকাতি ও খুনের মতো ঘটনা বিবিয়ানা এলাকার মজলিশপুর- পাওয়ার প্লান্ট সড়ক ঘটানায় আমরা দূঃচিন্তায় রয়েছি। কখন যে কে  খুন, গুম হয়! আমরা নানান আতংকে রয়েছি। এর কিছু দিন পূর্বে একই সড়কের একই স্থানে একাধিক চোরাগুপ্তা হামলা ও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।
এর পিছনে কার হাত রয়েছে তা প্রশাসনের মাধ্যমে জানতে চায় সচেতন মহল। কে এই মুকুটহীন সম্রাট।
এ ঘটনার খবর পেয়ে হবিগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পারভেজ আলম, নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আজিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আজিজুর রহমান এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, লাশ দেখে মনে হয় এটি একটি পরিকল্পীত হত্যাকান্ড। আমরা এই হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘানের চেষ্টা করছি। খুনি যেই হোক না কেন,  তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ