নতুন নেতৃত্ব পেলো ছাত্রদল, সভাপতি খোকন ও সা. সম্পাদক শ্যামল

 

দীর্ঘ ২৭ বছর পর শান্তিপূর্ণ পরিবেশে হয়ে গেল জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কাউন্সিল। এ কাউন্সিলে ফজলুর রহমান খোকন সভাপতি ও ইকবাল হোসেন শ্যামল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। বেগম জিয়ার মুক্তি আন্দোলন ত্বরান্বিত করা ও সাধারণ ছাত্র সমাজের অধিকার রক্ষায় কাজ করার ঘোষণা দেন নবনির্বাচিত নেতারা।

বুধবার রাত আটটা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের শাহজাহানপুরের বাসায় চলে ছাত্রদলের কাউন্সিলের ভোটগ্রহণ। ৫৩৪ কাউন্সিলের মধ্যে ৪৮১ জন ভোটে অংশ নেয়।

১৭ জন সাধারণ সম্পাদক ও ৯ জন সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ভোর সোয়া পাঁচটায় কাউন্সিলের ফলাফল ঘোষণা করেন বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস।

নবনির্বাচিত সভাপতি বগুড়ার ছেলে খোকন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজ বিজ্ঞানে ২০১০ সালে মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক নরসিংদীর শ্যামল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফারসিতে ২০১০ সালে মাস্টার্স করেন।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিতরা বেগম জিয়ার মুক্তি আন্দোলন ত্বরান্বিত করা ও ছাত্র সমাজের যৌক্তিক দাবি পূরণের ঘোষণা দেন।

ছাত্রদলের নবনির্বাচিত সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, ‘আমাদের প্রথম চ্যালেঞ্জ হবে খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করা।’

ছাত্রদলের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ছাত্রদের নিয়ে আমরা কাজ করে যাব।’

এর আগে ১৯৯২ সালে প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে ছাত্রদলের কাউন্সিল হয়। যাতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন রুহুল কবির রিজভী ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ইলিয়াস আলী।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ