তিস্তা-ধরলা সেতুর পর কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসের উদ্বোধন ,যুক্ত হল রংপুর ও লালমনিরহাট এক্সপ্রেসও

নূরুল হুদা নাহিদঃ (রংপুর প্রতিনিধি)
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬ অক্টোবর (বুধবার) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই ট্রেনের উদ্বোধন করেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আর যেন উত্তরবঙ্গবাসীকে মঙ্গা শব্দটি শুনতে না হয়। সেজন্য কাজ করে যাচ্ছি। এখন মঙ্গা নেই। অভাব নেই। মানুষের যোগাযোগের সাথে অর্থনৈতিক উন্নয়ন হচ্ছে।
কুড়িগ্রামবাসীর উদ্দেশ্যে করে মাননীয় শেখ হাসিনা বলেন, কুড়িগ্রামকে মজা করে বলতাম কুইড়্যা গ্রাম। এখন আর কুইড়্যা গ্রাম নেই। অনেক উন্নত হয়েছে। ধরলা সেতু, তিস্তা সেতুসহ যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের রেল ও সড়কপথে উন্নয়ন হয়েছে।
কুড়িগ্রাম থেকে মঙ্গাদূরীকরণে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। কুড়িগ্রাম থেকে প্রথম কৃষকদের ১০ টাকাতে ব্যাংক হিসাব চালু ও ন্যাশনাল সার্ভিস চালু করা হয়েছে।’
বক্তব্য শেষে হাতে সবুজ পতাকা উঁচিয়ে বাঁশি ফুঁকে আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তঃনগর ট্রেন কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস সহ নতুন কোচ প্রতিস্থাপিত রংপুর ও লালমনিরহাট এক্সপ্রেসের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
পরে প্রধানমন্ত্রী সাথে ভিডিও কনফারেন্সে রংপুরবাসীর সাথে কথা বলেন। রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান স্বাগত বক্তব্যে এই জেলার উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন কার্যক্রম, সফল বাস্তবায়ন ও চলমান কার্যক্রম তুলে ধরেন।
এসময় রংপুরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে ২০১১ সালে রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি উপহার দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা জানান শম্পা নামে এক শিক্ষার্থী।
প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, রংপুর এক্সপ্রেসে শুধু রাতে ঢাকা যেতাম। রংপুর থেকে ঢাকায় যেতে ট্রেনের জন্য অনেক অপেক্ষা করতে হত। এখন আর তা হবে না, কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস চালু হওয়ায় আমাদের ভোগান্তি কমবে।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ