ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

খোরশেদ আলম,কালিয়াকৈর:

গাজীপুর মেট্রোপলিটন (জিএমপি) কোনাবাড়ি থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ সাইফুল ইসলাম শুক্রবার রাতে এক ব্যবাসায়ীকে আটক করে মাদক মামলা দেওয়ার হুমকি দিয়ে পঞ্চাশ হাজার টাকা ঘুষ নেন। বিষয়টি মঞ্জু নামের ব্যবসাী গাজীপুর মেট্রোপলিটন (জিএমপি) কমিশনারের কাছে অভিযোগ করেন। সোমবার সকালে জিএমপির হেডকোয়াটার থেকে মাদক মামলায় ফাসানো ও ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে এসআই সাইফুল ইসলামকে প্রত্যাহার করেন।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসি হেডকোয়ার্টার মোঃ আরিফুল হকের আদেশে তাকে প্রত্যাশার করা হয়। কোনাবাড়ি থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ সাইফুল ইসলামকে জিএমপি’র হেডকোয়ার্টার লাইনে সংযুক্ত করা হয়।
কোনাবাড়ী থানা পুলিশ ও বাদী জানান, গত শুক্রবার রাতে কোনাবাড়ী থানার পারিজাত এলাকা মঞ্জু সিকদার কয়েকজন দিনমজুরের টাকা পরিশোধ করার জন্য বাসার সামনে একটি দোকানে দাড়িয়ে থাকেন। ওই সময় ওই পুলিশ কর্মকর্তা পিক রফিক নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেন। পওে মঞ্জু সিকদারকে কলারে ধরে তার কাছে এক বোতাল ফেনসিডিল পাওয়া গেছে বলে হুমকি দেন। এসময় মঞ্জু সিকদারকে মাদক মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দিয়ে একলাখ টাকা চা*দা দাবী করে। পরে পঞ্চাশ হাজার টাকায় দফারফা করা হয়। এঘটনাটি মঞ্জু সিকদার পুলিশ কমিশনারের কাছে অভিযোগ করলে ওই পুলিশ কর্মকর্তা সাইফুল ইসলামকে প্রত্যাহার করা হয়।
গাজীপুর (জিএমপি’র)পুলিশের ডিসি হেডকোয়ার্টার মোঃ আরিফুল হক বলছেন, একটি অনিয়মের কারণে তাকে ক্লোজ করা হয়েছে। তদন্ত করে পুলিশ আইনে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ