কেমন হলো এবারের বাজেট?

২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকাল ৩টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হওয়ার পর অর্থমন্ত্রী বাজেট বক্তব্য শুরু করেন। এ বাজেট বক্তব্যের মধ্য দিয়ে আসন্ন ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পেশ সম্পন্ন হবে।

বাজেট বক্তব্যের কিছু অংশ তিনি পঠিত বলে গণ্য করার অনুরোধ করেন অর্থমন্ত্রী। এছাড়া তিনি স্পিকারের অনুমতি নিয়ে বাজেট বক্তব্যের বিভিন্ন অংশ ডিজিটাল পদ্ধতিতে উপস্থাপন করছেন।

বাজেট পেশের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকারের কয়েকজন মন্ত্রী সংসদ কক্ষে উপস্থিত ছিলেন। তবে শারীরিকভাবে অসুস্থ বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ অধিবেশনে যোগ দেননি। তবে সিডিউল অনুযায়ী যোগ দেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

এর আগে প্রস্তাবিত বাজেটে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ বাজেট অনুমোদনের জন্য দুপুরে জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বিশেষ মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে আগামী বাজেটের অনুমোদন দেয়া হয়।
সংক্ষেপে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট:

#বাজেটের আকার ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকা। জিডিপি প্রবৃদ্ধি লক্ষ্যমাত্রা ৮ দশমিক ২ শতাংশ।

#আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ৩ লাখ ৮২ হাজার ১৩ কোটি টাকা।

#ঘাটতি ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি টাকা।

#করমুক্ত আয়সীমা বেড়ে পুরুষ ৩ লাখ এবং নারী ও ৬৫ বছরের বেশি নাগরিকদের সাড়ে ৩ লাখ টাকা।

#অনলাইনে প্রথমবার করদাতাদের ২ হাজার টাকা মওকুফ।

#পুঁজিবাজার বহির্ভুত প্রতিষ্ঠানের করপোরেট কর ৩৫ থেকে কমিয়ে ৩২.৫ শতাংশ করার প্রস্তাব।

#স্বাস্থ্য খাতে বাজেটের ৭.২% (৪১ হাজার ২৭ কোটি টাকা) বরাদ্দের প্রস্তাব।

#সুপ্রিম কোর্টের জন্য বরাদ্দ ২২২ কোটি টাকা।

#১০০ কোটি টাকার সমন্বিত স্বাস্থ্য-বিজ্ঞান গবেষণা ও উন্নয়ন তহবিল গঠনের প্রস্তাব।

#এবারের বাজেটে যেসব পণ্যের দাম বাড়বে:

রঙ, অনলাইন খাবার, অনলাইন কেনাকাটা, বিদেশি টিভি, সিগারেট, সোডিয়াম সালফেট, আয়রন, স্টিল, স্ক্রু, আলোকসজ্জা সামগ্রী, কম্প্রেসার শিল্পে ব্যবহৃত উপকরণ, বার্নিশ বাইসাইকেল, আমদানি করা অ্যালকোহল, গাড়ি রেজিস্ট্রেশন খরচ, গাড়ি, শ্যাম্পু, জুস, ইন্টারনেট খরচ, আমদানি করা দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্য, মোবাইল খরচ, চকলেট, বিদেশি মোটরসাইকেল, বডি স্প্রে।

#এবারের বাজেটে যেসব পণ্যের দাম কমবে:

মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাবস, ওষুধ, স্বর্ণ, চিনি, হস্তচালিত কৃষি যন্ত্রপাতি, পল্ট্রি, ডেইরি, মৎসশিল্পে ব্যবহৃত উপকরণ, ডিটারজেন্ট, ইলেক্ট্রিকাল সিগনাল যন্ত্রপাতি, আইসিইউ যন্ত্রপাতি।

তিন লাখ টাকা করা হয়েছে করমুক্ত আয়ের সীমা। অর্থাৎ যাদের বাৎসরিক আয় তিন লাখ টাকার নিচে নতুন প্রস্তাবিত বাজেট অনুযায়ী তাদের এ বছর কর দেয়া লাগছে না। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে করমুক্ত এ আয়ের সীমা বাড়ানোর প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী।

এছাড়াও মহামারি করোনা পরিস্থিতির মাঝেও ২০২০-২১ অর্থবছরের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ২ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) জাতীয় সংসদের প্রস্তাবিত বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ প্রস্তাব করেন।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ