কেউ যেন কারও ভোটাধিকার কেড়ে নিতে না পারে: প্রধানমন্ত্রী

 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে রাজধানীর সিটি কলেজ কেন্দ্রে ভোট দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই কেন্দ্রে ৮টায় ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন তিনি।

আজ ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে এবার দুই সিটির ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

ভোট শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ইভিএমের মাধ্যমে আমি ভোট দিয়েছি, খুব অল্প সময়ের মধ্যে আমি ভোট দিতে পেরেছি।

তিনি বলেন, ইনশাল্লাহ, আমি আশা করি ঢাকা সিটিতে আমাদের দু’জন প্রার্থী। আমি ভোটার হচ্ছি, ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসের। তাপসকে আমি ভোট দিলাম। উত্তরে আমাদের প্রার্থী আতিক, আশা করি সেও জয়যুক্ত হবে। জয়ী হয়ে ঢাকাবাসীর জন্য পরিচ্ছন্ন ও উন্নত নগরবাসী গড়ে তুলবে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ইভিএমের মাধ্যমে আমি ভোট দিয়েছি। খুব অল্প সময়ের মধ্যে আমি ভোট দিতে পেরেছি। আমি মনে করি, পর্যায়ক্রমে সমগ্র বাংলাদেশে এ ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভোট দেয়ার ব্যবস্থা করবেন আমাদের নির্বাচন কমিশনাররা। যাতে দেশের মানুষের ভোটের অধিকার নিশ্চিত হয়। কেউ কেউ যেন কারও ভোট কেড়ে নিতে না পারে। এবং সেই সাথে আমি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বলব, তারা যেন সজাগ থাকে। যেন প্রত্যেকটা ভোটার শান্তিতে তার পছন্দমতো প্রার্থীকে ভোট দিতে পারেন। অর্থাৎ তার ভোটের অধিকার সঠিকভাবে প্রয়োগ করতে পারে, সে পরিবেশটা আমরা সৃষ্টি করতে চাই। অনেক সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছি গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছি। যার ফলে দেশ আজ উন্নয়নে মহাসড়কে অগ্রযাতা শুরু করেছে। বাংলাদেশ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। ইনশাল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তুলব। সবাইকে আমার আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ