কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির উদ্যোগে গণতন্ত্র দিবস পালিত

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি, নাব্বির আল নাফিজ 

১০ নভেম্বর জাতীয় পার্টির গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে কুৃষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে জেলার সভাপতি নাফিজ আহম্মেদ খান , সম্পাদক শাহারিয়ার জামিল জুয়েলসহ সভাপতি এ্যাড: মির্জা লোকমান হেসেন বেগ, পারভেজ মাজমাদার, মর্জিনা বেগম, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মো: সিরাজুল ইসলাম চাঁদু, গোলাম মোস্তফা ফরহাদ, জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সৈয়দ রেজাউল করিম , সৈয়দ তানভির আহম্মেদ শাওন, কাজি আব্দুল বাকির, মিরপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ফারুক আহম্মেদ , সাধারন সম্পাদক শামিম হোসেন। এসময় বক্তারা বলেন, জাতীয় পার্টিই একমাত্র প্রকৃত দেশ সেবক । 

১৯৮৬ সালের ১০ নভেম্বর থেকে জাতীয় পার্টির গণতন্ত্র দিবস পালন করে আসছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও আমরা দিনটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করছি । ১৯৮২ সালের ২৪ শে মার্চ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত সামরিক অধ্যায় এবং ১৯৮৬ সাল থেকে ৯০ সাল পর্যন্ত গণতান্ত্রিক অধ্যায়। উপজেলা পদ্ধতি একটি গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা। পল্লীবন্ধু এরশাদ সাহেব দূর্নীতি মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে এবং দেশের মানুষকে ও রাজনৈতিকদের নিরাপত্তা দিয়েছিলেন। জাতীয় পার্টির আমলে দলবাজী, টেন্ডারবাজী, গুম, খুন, লুটপাট ও বিনা ভোটের অবস্থা ছিল না। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন , জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য ছানোয়ার হোসেন, মোশারফ হোসেন, জাহিদুল ইসলাম বাপ্পি, নাজিম আহম্মেদ, ইজবার আলী, এস আর কিরন, শ্রী মিন্টু দত্ত, মাহাবুল ইসলাম, আব্দুল মান্নান, দিনার হোসেন বুলবুল, ফজলুর রহমান ইছা প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এবং জাতীয় পার্টির সাবেক যুগ্ন আহবায়ক জাহাঙ্গীর কবির রতনের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এ সময় জেলা জাতীয় পার্টির সভায় জেলা কমিটির প্রচার সম্পাদকের পদটি শূন্য থাকায় পদটি পূরন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।সময় সভায় সকল সদস্যদের সম্মতিক্রমে সৈয়দ তানভির আহম্মেদ শাওনকে প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ