উওর-জয়নগরে জমি জমার বিরোধের জেরে স্কুল শিক্ষার্থীর উপর হামলা

ইমতিয়াজুর রহমান, ভোলা:

দৌলতখান উপজেলার দক্ষিণ দিঘলদী ইউনিয়নের উওর-জয়নগর ৬নং ওয়ার্ডের গফুর আলী হাওলাদার বাড়িতে জমি জমার বিরোধের জেরে স্কুল শিক্ষার্থীর উপর হামলা ঘটনা ঘটে। এতে আযাহার আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী জান্নাতুল মাওয়া গুরুতর আহত হয়।

আজ শুক্রবার (২৬ জুন) দুপুর ১২ টায় উওর-জয়নগর ৬নং ওয়ার্ডের গফুর আলী হাওলাদার বাড়ির চাঁন মিয়া হাওলাদার এর স্কুল পড়ুয়া মেয়ে জান্নাতুল মাওয়ার উপর একই বাড়ির আবুল কালামের ছেলে সাহাবুউদ্দিন (২৫) জমি-জমা বিরোধের জেরে হামলা চালায়। আহত জান্নাতুল মাওয়াকে ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা জন্য নিয়ে আসেন। আহত জান্নাতুল মাওয়া ভোলা সদর হাসপাতালের ১১ নাং কেবিনে চিকিৎসারত আছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গফুর আলী হাওলাদার বাড়ির চাঁন মিয়া হাওলাদার ও একই বাড়ির আবুল কালামের সাথে দীর্ঘ দিন যাবৎ জমি জমা নিয়ে বিরোধ ছিলো। শুক্রবার সকালে জমি জমা বিরোধের বিষয় টি মিমাংসার লক্ষে ইউপি মেম্বার ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তির উপস্থিতে শালিসি বসে। শালিসিতে উভয় পক্ষের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। শালিসের এক পর্যায়ে চাঁন মিয়া হাওলাদারের মেয়ে জান্নাতুল মাওয়ার তাদের পুরাতন বাড়ি থেকে দলিল ও প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র আনতে গেলে আবুল কালামের ছেলে সাহাবুউদ্দিন তাকে রড দিয়ে এলোপাতাড়ি মারে। জান্নাতুল মাওয়ার ডাক চিৎকারে উভয় পক্ষের লোকজন চলে আসে এবং দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি সৃষ্টি হয়।

এ বিষয়ে মামলার কথা জানতে চাইলে চাঁন মিয়া হাওলাদারের বড় মেয়ে নাদিয়া ইসলাম শিল্পী জানান আমরা দৌলতখান থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

 

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ