ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তির দাবিতে কর্মীদের অবস্থান কর্মসূচি 

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তি ও বহিরাগতদের নিয়ে বিদ্রোহী গ্রুপের উপর হামলার শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে পদবঞ্চিত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
শনিবার (১৪ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১ টায় দলীয় টেন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে তারা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব ম্যুরালের পাদদেশে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সেখানে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের হস্তক্ষেপ কামনা করে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা।
এসময় রাকিব- পলাশ কালসাপ ছাত্রলীগের অভিশাপ, রাকিব পলাশের বহিষ্কার ও শাস্তির চাই, ৪০ লাখের কমিটি মানিনা মানব না, অবৈধ কমিটি মানিনা মানব না, অনৈতিক কমিটির বিলুপ্তি চাই ইত্যাদি প্লাকার্ড হাতে এ বিক্ষোভ মিছিল করেন তারা।
এসময় অবস্থান কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের বিদ্রোহী গ্রুপের নেতা সাবেক বন বিষয়ক সম্পাদক যুবায়ের আল মাহমুদ, তৌকির মাহফুজ মাসুদ,শিশির আলামিন জোদ্দার, আবির, শাহজালাল সোহাগ, বিপুল হাসান খান সহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
দলীয় সূত্রে জানা যায়, অনৈতিক আর্থিক লেনদেনের বিনিময়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের অবৈধ কমিটি নিয়ে এসেছে বর্তমান কমিটি। কিছুদিন আগে শাখা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবের ৪০ লাখ টাকায় নেতা হবার অডিও ফাঁস হয়। এজন্য সভাপতি-সম্পাদক দুজনকেই ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে বিদ্রোহী গ্রুপের নেতাকর্মীরা। এ ঘোষণার পর কয়েকবার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে ধাওয়া দিয়ে ক্যাম্পাস ছাড়া করার ঘটনা কয়েকবার ঘটেছে।
এ বিষয়ে ছত্রলীগের বিদ্রোহী গ্রুপের নেতা যুবায়ের আল মাহমুদ বলেন, ‘‘সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক টাকার বিনিময়ে কমিটিতে এসেছে। এই কমিটি আমরা মানিনা। এরা বহিরাগতদের নিয়ে আমদের উপর হামলাও করেছে। কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে  হস্তক্ষেপ কামনা করি যেন এ কমিটি বিলুপ্তি করে নতুন কমিটি দেয়।’’

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ