আন্তর্জাতিক দারিদ্র বিমোচন দিবস উপলক্ষ্যে অক্টোবর মাস ব্যাপী নানা কার্যক্রম

মো: ইমতিয়াজ,ভোলা প্রতিনিধি
আন্তর্জাতিক দারিদ্র বিমোচন দিবস (১৭ই অক্টোবর, ২০১৯) উপলক্ষ্যে বিশ্বের বৃহত্তম বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক বাংলাদেশ সহ আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অক্টোবর মাস ব্যাপী নানা কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। রবিরাব (১৩ অক্টোবর) বিকেলে ভোলা সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদীতে ব্র্যাকের আলট্রা-পুওর গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রামের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক। তিনি ব্র্যাকের উল্লেখিত কর্মসূচির অংশগ্রহণকারীদের বাড়ি পরিদর্শন করেন এবং তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ ইন্দ্রজিৎ কুমার মন্ডল, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ দীনেশ চন্দ্র মজুমদার, উত্তর দিঘলদী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন মনসুর, জেলা ব্র্যাক প্রতিনিধি মোঃ আশরাফুল আলম, ইউপিজি কর্মসূচির জোনাল ম্যানেজার মোঃ সোলাইমান, মাইক্রোফিন্যান্স (দাবি) এর আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক মোঃ আব্দুল মালেক, মাইক্রোফিন্যান্স (প্রগতি) এর আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক জামাল হোসেন, ইউপিজি কর্মসূচির আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক বিধান চন্দ্র মুল্লিক ও অজিত হালদার সহ বিভিন্ন কর্মসূচির কর্মীগন উপস্থিত ছিলেন।

এসময় দেশের অতিদারিদ্র্য নিরসনে ব্র্যাকের ভূমিকার প্রশংসা করে জেলা প্রশাসক মো: মাসুদ আলম সিদ্দিক বলেন,‘ ব্র্যাকের এই কর্মসূচিটি দারিদ্র বিমোচনে অত্যান্ত কার্যকরি ও সফল। তবে হরিজন, দাস ও বেদে সম্প্রদায়কে অন্তর্ভুক্ত করা হলে আরো ভালো হতো’।এসময় তিনি এই কর্মসুচি অব্যাহত রাখার জন্য ব্র্যাকের প্রতি আহবান জানান।

জাতিসংঘ এ বছরের আন্তর্জাতিক দারিদ্র্য বিমোচন দিবসের মূল প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে ‘পরিবার, শিশু ও সমাজের ক্ষমতায়ন, সকলের অংশগ্রহণে। দিবসটিকে কেন্দ্র করে ব্র্যাকের আলট্রা-পুওর গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রাম কর্মসূচিটি চালু রয়েছে এরকম ৪৩ টি জেলার জেলা প্রশাসনের সহায়তায় সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক মহোদয়ের মাঠকার্যক্রম পরিদর্শন আয়োজন করেছে।

ব্র্যাকের কর্মকর্তারা জানান, এই উদ্যোগের লক্ষ্য হচ্ছে, সরকারের মাঠ পর্যায়ে তথা জেলা প্রশাসকদের আলট্রাপুওর গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রাম বিষয়ে সম্যক ধারণা দেওয়া এবং জেলা পর্যায়ে সংশ্লিষ্ট সরকারি প্রতিষ্ঠান সমূহের কাছে কর্মসূচিটির অভিজ্ঞতা লব্ধ জ্ঞান তুলে ধরা। যা ভবিষ্যতে সরকারের সঙ্গে সমন্বিতভাবে কাজ করার পরিবেশ তৈরিতে অবদান রাখবে। একই সঙ্গে বাংলাদেশ থেকে অতিদারিদ্র্য দূরীকরণে আলট্রা-পুওর গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রাম কীভাবে অবদান রাখতে পারে, সে বিষয়ে জেলা প্রশাসক এবং অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তাদের পরামর্শ গ্রহণ করা, যা ব্র্যাকের ভবিষ্যত করণীয় নির্ধারণে সহায়ক হবে।

উল্লেখ্য ভোলা জেলায় ২০১৪ সালে আলট্রা-পুওর গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রামের কার্যক্রম শুরু হয়। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর প্রর্যন্ত জেলার ১২৬৯১ টি অতিদরিদ্র পরিবার ব্র্যাকের আলট্রা-পুওর গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রামের আওতায় এসেছে। ২০১৯ সালে ভোলা জেলায় এই কর্মসূচিটিতে অংশ নিচ্ছে ৬ টি উপজেলার ৩৯২০ টি অতিদরিদ্র পরিবার। ২০০২ সাল থেকে ২০১৯ সাল প্রর্যন্ত বাংলাদেশের ৪৭টি জেলার বিশ লক্ষের বেশি অতিদরিদ্র পরিবার আলট্রা-পুওর গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রামের আওতায় এসেছেন যাদের ৯৫% কর্মসূচি শেষ হয়ে যাওয়ার পর দীর্ঘমেয়াদের তাদের আর্থসামাজিক উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে সক্ষম হয়েছে।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ