আজ পবিত্র হজ , ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ ধ্বনিতে মুখরিত আরাফাতের ময়দান

শুরু হলো পবিত্র হজ। লাখো মুসল্লীর কণ্ঠে ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ ধ্বনিতে মুখরিত আরাফাতের ময়দান। লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, হাজির-হে আল্লাহ তোমার দরবারে হাজির।

আরাফাতের ময়দানে মিশেছে লাখো হাজির এ স্রোত। হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা আরাফাতের ময়দানে হাজিদের এই অবস্থান, সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত। জীবনের সব দেনা-পাওনা পেছনে ফেলে, মহান আল্লাহর নৈকট্য লাভে প্রার্থনা করেন হাজিরা।

সকালেই, মিনা থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে আরাফাতের ময়দানে সমবেত হতে শুরু করেন, হাজিরা। বাংলাদেশে সময় দুপুর তিনটায় মসজিদে নামিরা থেকে খুতবা পাঠ করেন, মসজিদে নববীর সিনিয়র খতিব;

কামনা করা হয় মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি। এরপর একসাথে জোহর ও আসরের নামাজ আদায় করেন হাজিরা।

সূর্যাস্তের পর, মুজদালিফার উদ্দেশে হাজিদের যাত্রা। সেখানে মাগরিব ও এশার নামাজ আদায় শেষে, খোলা মাঠে রাতযাপন করবেন হাজিরা।

কাল রোববার (১১ আগস্ট) ফজরের নামাজের পর মিনায় ফিরে ‘জামারাতে’ শয়তানকে সাতটি করে পাথর মারবেন তারা। এরপর হবে পশু কোরবানি। মিনায় কোরবানি করার পর হাজীরা মাথা মুণ্ডন করে অথবা চুল ছোট করে ইহরাম ভেঙে ফেলবেন।

পরে, কাবা শরিফে বিদায়ী তাওয়াফ এবং সাফা-মারওয়া পাহাড়ে সাতবার ‘সাঈ’ করে মক্কায় ফিরবেন, হাজিরা।

এ বছর, হজ পালন করছেন বিশ্বের দেড় শতাধিক দেশের, ২০ লাখের বেশি মুসলমান।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ