অন্য চেয়ারম্যানরা যা করবে তা দেখে আমি কিছু করব

আলমগীর সরকার, ময়মনসিংহ:
ময়মনসিংহ গফরগাঁও উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল আলমের কাছে প্রশ্ন ছিল করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় আপনার ইউনিয়নে অসহায় হতদরিদ্র মানুষের জন্য কি পদক্ষেপ নিয়েছেন। 
এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি দাবি করেন মুজিববর্ষে ২ লক্ষ টাকা খরচ করেছি আমার নাম হয়নি। অন্য চেয়ারম্যান  ৫০০০ টাকা খরচ করে নাম হয়েছে এখন করোনা ভাইরাসের জন্য অন্য চেয়ারম্যান কি করে আমিও দেখে  কিছু করব এসব করে কি হবে নাম তো হয়না।
আমি নতুন চেয়ারম্যান করে কি হবে পুরাতন চেয়ারম্যানরা  কিছু করছে না। অন্য এক প্রশ্নে বলা হয় গফরগাঁও উপজেলার ২/৩ জন চেয়ারম্যান তাদের নিজস্ব তহবিল থেকে অনেক কিছুই করছে অসহায় হতদরিদ্র মানুষের জন্য। আপনার ইউনিয়নের অসহায় হতদরিদ্রদের জন্য আপনার তহবিল থেকে কিছু করা যায় না  তিনি দাবি করেন তাদের নিজস্ব তহবিল আছে অনেক টাকা আছে তারা করছে আমার নিজস্ব তহবিল নেই আমি করতে পারছিনা।
জনপ্রতিনিধিদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছে হতদরিদ্র গরীব দুঃখী মানুষের কাছে যেভাবে ভোট চেয়েছেন সেভাবে খাবার পৌঁছে দেন।কিন্তু গত ৪ থেকে ৫ দিন যাবৎ চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের দেখা কেউ পাচ্ছেনা ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ